হটলাইন: 01934-882699
بِسْمِ اللهِ الرَّحْمٰنِ الرَّحِيْمِ
jamiamst@gmail.com Web Mail

মাদরাসা সম্পর্কে

প্রতিষ্ঠান পরিচিতি:

বাংলার দুই প্রাণ পুরুষ আল্লামা জাফর আহমাদ (প্রিন্সিপাল, ঢালকানগর মাদধাসা) দা. বা. ও আরেফ-বিল্লাহ আল্লামা শাহ আবদুল মতিন বিন হুসাইন দা. বা. এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও পরামর্শে ১৪৩৬ হিজরীর রজব মাসে ঢাকার মিরপুরে ১২ এ বাড়ি-১০/৬ তে (ভাড়া বাড়িতে) প্রতিষ্ঠানের পথচলা শুরু হয়। নাম দেওয়া হয় মাদ্রাসা মারকাযুস সুন্নাহ তাহিয়্যাতুত তুল্লাব।

তবে কিছুদিন পরে প্রতিষ্ঠানের সার্বিক প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে ̄স্থায়ী ভবন নিমার্ণের আশায় এক দ্বীনি ভাই এর সহযোগীতায় মিরপুরের নিকটস্থ বিরুলিয়াতে ৪৯ শতাংশ জমি খরিদ করা হয়। তখন প্রতিষ্ঠানের নাম দেওয়া হয় “জামেয়া মারকাযুস সুন্নাহ তাহিয়্যাতুত তুল্লাব”।
বর্তমানে প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় কার্যক্রম ইজারা সূত্রে দুটি ভবনে সম্পাদিত হচ্ছে।

ছাত্র সংখ্যা:
বর্তমানে দেড় শতাধিক ছাত্র অত্র প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করছে। যাদের অধিকাংশই আবাসিক নির্ধারিত উদ্ভাদ্গনের মাধ্যমে তাদেরকে তদারকি করা হয়।

সদকায়ে জারিয়া মূলক ফান্ডে অনুদান গ্রহণ:
প্রতিষ্ঠানে কয়েকটি খাতে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের সুযোগ রয়েছে।

ক. লিল্লাহ ফান্ড:
এ খাতে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে গরিব ও মেধাবী ছাত্রদের বিনামূল্যে পাঠদান করানো হয় এবং তাদের খাবার সহ যাবতীয় সেবা আঞ্জাম দেওয়া হয়।

খ. কিতাব ক্রয়:
প্রতিষ্ঠানের একটি সমৃদ্ধশালী পাঠাগার প্রতিষ্ঠার ̄স্বপ্ন নিয়ে “মাবতাবাতুস সুন্নাহ” নামে একটি ক্ষুদ্র পাঠাগার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে এবং কিতাব ক্রয়ের জন্য অর্থ সংগ্রহ চলছে।

গ. মসজিদ নিমার্ণ:
মাদ্রাসার ̄স্থায়ী ভবনে ১টি মসজিদের জন্য জায়গা ক্রয় করা হয়েছে। সেখানে ১ম ফ্লোরে প্রায় ২০০০ জন মুসল্লী নামাজ পড়তে পারে এমন একটি বৃহদাকার মসজিদ নির্মানের জন্য অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

ঘ. ̄স্থায়ী ভবন নির্মাণ:
প্রতিষ্ঠানের ̄স্থায়ী ভবন নিমার্ণের জন্য অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

ঙ. আজীবন সদস্য কাফেলা:
প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন ̧গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতার জন্য সমমনা কিছু দ্বীনদার ভাই ও বোনদের নিয়ে আজীবন সদস্য কাফেলা রয়েছে। আপনি ও ইচ্ছে করলে আজীবন সদস্য কাফেলায় যোগ দিতে যা করনীয়:
১। মাদরাসা দপ্তর থেকে ১টি আজীবন সদস্য ফরম নিয়ে তা পূরণ করে জমা দিতে হবে।
২। প্রতি মাসে নূন্যতম ১০০০/- টাকা বাবাদ অনুদান দেওয়া।
৩। বিভিন্ন পরামর্শ সভা ও অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে নিজের সুচিন্তিত অভিমত ব্যক্ত করা।